ঘরে ঢুকে এনজিওকর্মীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, ভিডিও ধারণ

সিলেট মিরর ডেস্ক


অক্টোবর ১১, ২০২০
০৮:৩৪ অপরাহ্ন


আপডেট : অক্টোবর ১১, ২০২০
০৮:৩৪ অপরাহ্ন



ঘরে ঢুকে এনজিওকর্মীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, ভিডিও ধারণ

বাগেরহাটের ফকিরহাটে এক এনজিওকর্মী (২৫) দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় রবিবার (১১ অক্টোবর) বিকেলে ধর্ষণের শিকার ওই এনজিওকর্মী বাদী হয়ে ফকিরহাট থানায় চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

শনিবার রাতে জেলার ফকিরহাট উপজেলার লখপুর ইউনিয়নে এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। বিকেলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে মো. মামুন শেখ (৩০) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।

এ সময় তার কাছ থেকে ধর্ষণের ধারণ করা একটি ভিডিও উদ্ধার করে পুলিশ। বাকি আসামীদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

গ্রেপ্তার মো. মামুন শেখ ফকিরহাট উপজেলার লখপুর ইউনিয়নের জাড়িয়া মাইট কুমড়া গ্রামের শের আলী শেখের ছেলে। তিনি পেশায় ভ্যান চালক। পালিয়ে যাওয়া অন্য আসামিদের বাড়িও জাড়িয়া মাইট কুমড়া গ্রামে।

ওই নারীর বাড়ি খুলনার দৌলতপুরে। তিনি ফকিরহাট উপজেলার একটি বেসরকারি এনজিওর কর্মী। দুই মাস আগে তিনি বিয়ে করেন।

ফকিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আ ন ম খায়রুল আনাম বলেন, শনিবার রাতে ফকিরহাট উপজেলার লখপুর ইউনিয়নের একটি গ্রামের ভাড়াটিয়া এনজিওকর্মীর ঘরে একদল যুবক হানা দেয়। তারা ঘরের দরজার কড়া নাড়লে ওই নারী দরজা খুলে দেন। এরপর তারা নারীর ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে এবং ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করে চলে যায়। রবিবার এ ঘটনা পুলিশ জানতে পেরে ওই নারীকে উদ্ধার করে চার যুবকের বিরুদ্ধে মামলা নিয়ে তার ডাক্তারি পরীক্ষা করে।

তিনি জানান, মেয়েটির অভিযোগের ভিত্তিতে মো. মামুন শেখ নামে এজাহারনামীয় একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার কাছে থাকা মোবাইলফোনে ধর্ষণের একটি ভিডিও চিত্র জব্দ করা হয়েছে। অন্যদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বিএ-০৯