ফিফা প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে ফোজদারি মামলা

খেলা ডেস্ক


জুলাই ৩০, ২০২০
০৮:৩৮ অপরাহ্ন


আপডেট : জুলাই ৩০, ২০২০
০৮:৩৮ অপরাহ্ন



ফিফা প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে ফোজদারি মামলা

এবার নিজ দেশেই ফৌজদারি মামলায় ফেঁসে যাচ্ছেন বর্তমান ফিফা প্রেসিডেন্ট জিয়ান্নি ইনফ্যান্তিনো।দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে ফুটবলে নিষিদ্ধ হয়ে আছেন সাবেক ফিফা প্রেসিডেন্ট সেপ ব্লাটার।

সুইস অ্যাটর্নি জেনারেল মাইকেল লবারের সঙ্গে ফিফা প্রধানের লেনদেন নিয়ে তদন্তে নেমেছে সুইজারল্যান্ড। তার অংশ হিসেবে বিশেষ প্রোসিকিউটর নিয়োগ দেওয়া হয়েছে চলতি মাসে। বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থার দুর্নীতি নিয়ে তদন্ত করে অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিস। তার প্রেক্ষিতে লবারের সঙ্গে বৈঠকে বসেন ইনফ্যান্তিনো। সেজন্য গত সপ্তাহে লবারকে পদত্যাগ করতে বলা হয়।

বিশেষ প্রোসিকিউটর স্টেফান কেলার অ্যাটর্নি জেনারেলের বিরুদ্ধেও ফৌজদারি মামলা দায়ের করার অনুমতি চেয়েছেন। কেননা ইনফ্যান্তিনো ও লবারের বৈঠকে ফৌজদারি অপরাধের ইঙ্গিত মিলেছে। যদিও ইনফ্যান্তিনো ও লবার দুজনেই নিজেদের নির্দোষ দাবী করে আসছেন। জুরিখে দুদফা ভোটিং শেষে ২০১৬ সালে ফেভারিট প্রার্থী শেখ সালমানকে হারিয়ে ফিফা প্রেসিডেন্ট হন ইনফ্যান্তিনো। দুর্নীতির কারণে দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়াতে বাধ্য হওয়া সাবেক প্রেসিডেন্ট সেপ ব্লাটারের স্থলাভিষিক্ত হন তিনি।

সেসময় ইনফ্যান্তিনো ফিফা কংগ্রেসকে জানিয়ে ছিলেন, ‘এ মুহূর্তে আমি আমার অনুভূতি প্রকাশ করতে পারব না। আমরা ফিফার ভাবমূর্তি ও সম্মান পুনরুদ্ধার করব। বিশ্বের সবাই আমাদের প্রশংসা করবে। আমরা নিশ্চয়তা দিতে যাচ্ছি যে আবার ফুটবলের সৌন্দর্যে মনোনিবেশ করতে পারব আমরা।’ ফিফার দায়িত্ব নেওয়ার আগে ২০০৯ সাল থেকে উয়েফা মহাসচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন ইনফ্যান্তিনো।

এএন/০৭