@Framework : Laravel 6 (IT Factory Admin) @Developer : Faysal Younus Daily Sylhet Mirror | ধর্মপাশায় দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার ১৮ দিন পর এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু
ধর্মপাশায় দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার ১৮ দিন পর এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু

ধর্মপাশা প্রতিনিধি


জানুয়ারি ১৮, ২০২২
০৭:২৩ অপরাহ্ন


আপডেট : জানুয়ারি ১৮, ২০২২
০৭:২৩ অপরাহ্ন



ধর্মপাশায় দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার ১৮ দিন পর এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু

মোটসাইকেলের ধাক্কায় গুরুতর আহত হওয়ায় ১৮ দিন পর সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলার সদর ইউনিয়নের লংকাপাথারিয়া গ্রামের বাসিন্দা ও সদর বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মো. আব্দুল করিমের (৫০) মৃত্যু হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৮জানুয়ারি) ১০টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। গত বছরের ৩১ডিসেম্বর বিকেল তিনটার দিকে উপজেলার সদর  ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামের সামনের সড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

ধর্মপাশা থানা পুলিশ, এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে পঞ্চম ধাপে গত ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত উপজেলার ধর্মপাশা সদর ইউনিয়নে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ওই  ইউনিয়নের  মো. আব্দুল করিম (৫০) স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান পদে চশমা প্রতীক পেয়ে নির্বাচনে অংশ নেন।

গত ৩১ডিসেম্বর বেলা সাড়ে ১২টার দিকে নির্বাচনী গণসংযোগ করার জন্য চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. আবদুল করিম ওই ইউনিয়নের রাজনগর গ্রামে  যান। ওইদিন বিকেল তিনটার দিকে  গণসংযোগ শেষ করে তিনি রাজনগর গ্রামের সামনের সড়কে আসা মাত্রই যাত্রীবাহী  একটি মোটরসাইকেল তাঁকে পেছন থেকে ধাক্কা মারলে তিনি সড়কের ওপর পড়ে গিয়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পেয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়েন। তাঁর দুই কান দিয়ে রক্ত বের হচ্ছিল। অজ্ঞান অবস্থায় তাঁকে সেখান থেকে উদ্ধার করে  তাৎক্ষনিকভাবে ধর্মপাশা উপজেলা স্বাস্থ্য নিয়ে যাওয়া হয়। 

সেখানকার চিকিৎসকেরা তাঁকে সাময়িক চিকিৎসা দিয়ে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। ওইদিন সন্ধ্যা সাতটার দিকে তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাঁর শারিরীক অবস্থার অবনতি হওয়ায় চিকিৎসকের পরামর্শে মুমুর্ষ অবস্থায় ওইদিন রাতেই তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। ওই হাসপাতালে তাঁর মাথায় অস্ত্রোপচার করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুর্ঘটনার শিকার হওয়ার ১৮দিন পর মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে তিনি মারা যান। 

আব্দুল করিমের ছোট ভাই আব্দুল হামিদ বলেন, আমার বড় ভাই হাজী আব্দুল করিম ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে মারা গেছেন। তাঁর এক ছেলে ও তিন মেয়ে রয়েছে। আমার বড় ভাইয়ের জন্য সবাই দোয়া করবেন।      

ধর্মপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.খালেদ চৌধুরী  বলেন, মোটর সাইকেলের ধাক্কায় আহত হওয়ার ঘটনায় আব্দুল করিমের ছোট ভাই আব্দুল হামিদ বাদী হয়ে নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলার বড়তলী বানিয়াহারী ইউনিয়নের হাতনি গ্রামের বাসিন্দা মোটরসাইকেল চালক সবুজ মিয়া (৩৪) কে আসামি করে গত ৮ জানুয়ারি থানায় একটি মামলা করেছেন। তাঁকে গ্রেপ্তারের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এসএ/আরসি-১৩