বিশ্বে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ১১ লাখ ছাড়াল

সিলেট মিরর ডেস্ক


অক্টোবর ১৬, ২০২০
১০:২৯ পূর্বাহ্ন


আপডেট : অক্টোবর ১৬, ২০২০
১০:২৯ পূর্বাহ্ন



বিশ্বে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ১১ লাখ ছাড়াল

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে বিশ্বব্যাপী মৃত্যুর সংখ্যা ১১ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। শনাক্ত হয়েছে ৩ কোটি ৯২ লাখের কাছাকাছি মানুষ।

শুরু থেকে করোনা সংক্রান্ত পরিসংখ্যান জানিয়ে আসা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশ সময় শুক্রবার সকাল ১০ পর্যন্ত সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ১১ লাখ ২ হাজার ৯৪১ জন।

আক্রান্ত হয়েছেন ৩ কোটি ৯১ লাখ ৭৫ হাজার ৪৬২ জন। তবে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ২ কোটি ৯৩ লাখ ছাড়িয়ে গেছে।

করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে ৮২ লাখের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২ লাখ ২২ হাজারের বেশি লোক।

মৃতের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আছে ব্রাজিল। দেশটিতে মৃতের সংখ্যা এক লাখ ৫২ হাজার ছাড়িয়েছে। শনাক্তের সংখ্যা ৫১ লাখ ৭০ হাজার ছাড়িয়েছে। আক্রান্তের দিক দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পরেই লাতিন আমেরিকার দেশটির অবস্থান।

এক লাখ ১২ হাজার ১৬১ মৃত্যু নিয়ে তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে আছে ভারত। দেশটিতে ৭৩ লাখ ৭০ হাজারের বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তের তালিকায় ভারতের অবস্থান দ্বিতীয়।

মৃতের সংখ্যা চতুর্থ অবস্থানে আছে মেক্সিকো। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছেন ৮৫ হাজার ২৮৫ জন মানুষ। শনাক্ত হয়েছে ৮ লাখ ৩৪ হাজার মানুষ। 

৪৩ হাজার ২৯৩ জন মৃত্যু নিয়ে তালিকায় চতুর্থ অবস্থানে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে শনাক্ত হয়েছে ৬ লাখ ৭৩ হাজার করোনা রোগী।

শুরুতে করোনায় মৃত্যুপুরীতে পরিণত হওয়া ইতালিতে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩৬ হাজার। এ ছাড়া স্পেন, ফ্রান্স ও পেরু-প্রতিটা দেশে মারা গেছে ৩৩ হাজারের বেশি মানুষ।  

এদিকে দেশে রোববার পর্যন্ত মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৬০৮ জনে। আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৫৫৯ জন।

প্রসঙ্গত, ডিসেম্বরের শেষে চীনের উহান থেকে এই করোনাভাইরাস পুরো বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। দেশটিতে মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৩৪ জন। 

এখন পর্যন্ত প্রাণঘাতী ভাইরাসটির কোনো ভ্যাকসিন বা টিকা নাই। যদিও রাশিয়া একটি টিকা আবিষ্কার করেছে, যেটি নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক মহল।

বিজ্ঞানীরা আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন যত দ্রুত সম্ভব টিকা বাজারে আনতে। এর মধ্যে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়, মার্কিন ওষুধ কোম্পানি পাইজার, চীনা কোম্পানি সিনোভ্যাকের গবেষকদের আবিষ্কৃত টিকা বেশ আশা জাগিয়েছে বিশ্বজুড়ে।

এ বছরের শেষ কিংবা আগামী বছরের শুরুর দিকে সাধারণের জন্য করোনা টিকা বাজারে চলে আসবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিএ-০৭