গোলাপগঞ্জেও বক্তব্য দেওয়ার সুযোগ হয়নি মামুনুলের

নিজস্ব প্রতিবেদক


জানুয়ারি ১৩, ২০২১
০৫:৪৯ অপরাহ্ন


আপডেট : জানুয়ারি ১৩, ২০২১
০৫:৪৯ অপরাহ্ন



গোলাপগঞ্জেও বক্তব্য দেওয়ার সুযোগ হয়নি মামুনুলের

ভাস্কর্যবিরোধী বক্তব্য দিয়ে ইতোমধ্যে সমালোচিত হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক। এর জের ধরে সিলেটের একটি ওয়াজ মাহফিলে বক্তব্য দিতে দেওয়া হয়নি। মঞ্চে উঠার আগেই প্রশাসন তাকে মাহফিল থেকে ফিরিয়ে দেয়। এ নিয়ে সিলেটে টানা তিন অনুষ্ঠানে বক্তব্য না দিয়েই ফিরে যেতে হয়েছে মাওলানা মামুনুলকে।

ঘটনাটি ঘটেছে সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার ভাদেশ্বর ইউনিয়নের শেখপুর শাহী ঈদগাহ মাঠে। জানা গেছে, মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) শেখপুর তরুণ সংঘের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত এক ওয়াজ মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন মাওলানা মামুনুল হক। কিন্তু সেখানে তাকে বক্তব্য দিতে দেওয়া হয়নি। স্থানীয় আইনশৃঙ্খলার বিঘ্ন ঘটতে পারে এমন আশঙ্কা থেকে প্রশাসন তাকে বক্তব্য দিতে দেয়নি। এছাড়া আয়োজক কমিটি মাহফিলের জন্য প্রশাসেনের কোনো অনুমতি নেয়নি বলেও জানা গেছে।

এই বিষয়ে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ হারুনুর রশীদ চৌধুরী বলেন, স্থানীয় পর্যায়ে আইন-শৃঙ্খলার বিঘ্ন ঘটতে পারে। এই আশংকায় তাকে ওই ওয়াজ মাহফিলে বক্তব্য দিতে দেওয়া হয়নি। তাছাড়া প্রশাসনের কোনো অনুমতিও নেয়নি আয়োজক কমিটি।

এই নিয়ে সিলেটের তিনটি মাহফিলে প্রধান অতিথি হয়েও বক্তব্য রাখতে পারেননি হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক। গত বছরের ২১ ডিসেম্বর সিলেটের বিয়ানীবাজার উপজেলার জামিয়া দ্বীনিয়া আসআদুল উলুম রামধা মাদরাসার মজলিসে অতিথি করা হয়েছিলো এই ইসলামী বক্তাকে। এছাড়াও ২৬ ডিসেম্বর সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার উছমানপুর ইউপির লামাপাড়া শাহ গরিব এমদাদিয়া মাদ্রাসার ইসলামী মহাসম্মেলনেও তিনি ছিলেন প্রধান অতিথি। কিন্তু স্থানীয় প্রশাসনের অনুমতি এবং একটি মহলের বাধার মুখে তিনি ওই দুই মাহফিলেও বক্তব্য রাখতে পারেননি।

আরসি-০৪