শায়েস্তাগঞ্জে করোনা উপসর্গে মারা যাওয়া পল্লী চিকিৎসককে দাফন করলো পুলিশ

শায়েস্তাগঞ্জ সংবাদদাতা


জুন ২৯, ২০২০
০১:১১ অপরাহ্ন


আপডেট : জুন ২৯, ২০২০
০১:১১ অপরাহ্ন



শায়েস্তাগঞ্জে করোনা উপসর্গে মারা যাওয়া পল্লী চিকিৎসককে দাফন করলো পুলিশ

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলার নুরপুর ইউনিয়নে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া জাহিদুর রহমান খোকন (৫৪) নামে এক ব্যক্তির লাশের কাছে আসেনি আত্মীয়-স্বজনেরা। লাশ দাফনেও বাধা দেয় এলাকার কিছু প্রভাবশালী লোকজন। কিন্তু কেউ লাশ দাফনে এগিয়ে না এলেও খবর পেয়ে এগিয়ে যায় শায়েস্তাগঞ্জ থানা পুলিশ।

গত শনিবার (২৭ জুন) রাতে শায়েস্তাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) মোজাম্মেল হোসেনের নির্দেশে তদন্ত ওসি আল মামুনের নেতৃত্বে এসআই ওয়াদুদ খন্দকার, এসআই রাজিব সরকার ও এএসআই জসিম উদ্দিনসহ পুলিশের একটি টিম ছুঁটে যান ওই গ্রামে। এলাকাবাসীকে বুঝিয়ে কবর খনন শুরু করেন। এসময় ইসলামী ফাউন্ডেশনের সহযোগীতায় জানাজার নামাজ পড়িয়ে রাত ২ টায় স্থানীয় কবরস্থানে ওই ব্যক্তির লাশ দাফন করেন তারা। 

মৃত ব্যক্তি উপজেলার পশ্চিম নুরপুর গ্রামের শেখ দাউদুর রহমানের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন শিক্ষকতা পেশায় নিয়োজিত ছিলেন । 

এসআই রাজিব সরকার বলেন, আত্মীয়-স্বজনরা তার কাছে আসেন না এবং গ্রামবাসী লাশ দাফনে বাধা দেয়। আমরা ওই গ্রামে গিয়ে এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে তাদেরকে বুঝিয়ে কবর খনন করে লাশের দাফন-কাফন সম্পন্ন করি।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) আল মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে  বলেন, পুলিশ সদস্যরা করোনা ভয়কে উপেক্ষা করে লাশ দাফনে ছুটে গিয়েছিলেন তা মানবিক কারনেই । পুলিশ যে জনগণের বন্ধু এটাই তার প্রমাণ।

জেএ/বিএ-১০