কোহলি-তামান্নাকে গ্রেপ্তারের দাবি

খেলা ডেস্ক


জুলাই ৩১, ২০২০
০৯:১৩ অপরাহ্ন


আপডেট : জুলাই ৩১, ২০২০
০৯:১৩ অপরাহ্ন



কোহলি-তামান্নাকে গ্রেপ্তারের দাবি

ক্রিকেট সহ বিভিন্ন খেলা সংক্রান্ত যে সকল অনলাইন গ্যাম্বলিং অ্যাপ চালু রয়েছে এদেশে সেগুলি অবিলম্বে বন্ধ করা হোক। একইসঙ্গে অনলাইন গ্যাম্বলিং অ্যাপগুলি এনডোর্স করে সেগুলো প্রোমোট করার জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হোক ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি ও অভিনেত্রী তামান্না ভাটিয়াসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে। ঠিক এই মর্মেই মাদ্রাজ হাইকোর্টে পিটিশন দাখিল করলেন চেন্নাইয়ের এক আইনজীবী।

অনলাইন জুয়া প্রোমোট করার কারণে বিরাট কোহলি এবং অভিনেত্রী তামান্না ভাটিয়াকে গ্রেপ্তারেরও দাবি তুলেছেন ওই আইনজীবী। ওই আইনজীবীর কথায় অনলাইন গ্যাম্বলিং অ্যাপগুলোতে আসলে মরণফাঁদ। সেগুলিতে আকৃষ্ট হয়ে সর্বস্ব খুঁইয়ে আত্মহত্যার পথ বেছে নিচ্ছে তরুণরা। আর এই মরণফাঁদের জন্য তরুণ প্রজন্মের মগজধোলাই করছেন কোহলি, তামান্নার মতো বিভিন্ন ক্ষেত্রের সেলেব্রেটিরা। তাই অবিলম্বে উচিৎ তাঁদের গ্রেপ্তার করা। 

এ প্রসঙ্গে সাম্প্রতিক সময়ে তামিলনাড়ুতে অনলাইন জুয়ার কারণে আত্মহত্যার সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার দিকেও আলোকপাত করেছেন চেন্নাইয়ের আইনজীবী। তাঁর অভিযোগ, এর জেরে প্রচুর অর্থের অপচয় করছে তরুণ প্রজন্ম। মুনাফার আশায় অ্যাপগুলোতে প্রচুর টাকার বাজি রাখলেও সেই মুনাফার মুখ না দেখায় পরবর্তীতে কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হচ্ছে তারা। অনলাইন গ্যাম্বলিং অ্যাপগুলোকে ব্লু-হোয়েলের মতো মরণ গেমের সঙ্গেও তুলনা করেছেন আইনজীবী। আগামী মঙ্গলবার এই মামলার শুনানি। 

উল্লেখ্য, ভারতে ক্রিকেটের একটি অনলাইন গ্যাম্বলিং অ্যাপের মুখ দেশের জাতীয় দলের অধিনায়ক। কিন্তু ভারতবর্ষে অনলাইন গ্যাম্বলিং যে আইনবিরুদ্ধ সেকথাও বলা যাবে না। কারণ অনলাইন গ্যাম্বলিং’য়ের বিরুদ্ধে কোনও আইন এখনও বলবৎ নয় এদেশে। ফলে কোহলি কিংবা তামান্নার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ কতোটা ধোপে টিকবে সেটা বলা মুশকিল। আপাতত ১৯ সেপ্টেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাটিতে আইপিএল নিয়েই মাথা ঘামাচ্ছেন কোহলি।

এএন/০৪