এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে আকবর, উত্তাল নগর

নিজস্ব প্রতিবেদক


অক্টোবর ১৭, ২০২০
১২:২০ পূর্বাহ্ন


আপডেট : অক্টোবর ১৭, ২০২০
১২:২০ পূর্বাহ্ন



এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে আকবর, উত্তাল নগর

বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হান আহমদের মৃত্যুর ৬ দিন পার হলেও এখনও মূল অভিযুক্ত এসআই আকবরকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। গ্রেপ্তার হয়নি ঘটনার সঙ্গে জড়িত অন্য কোনো আসামিও। ১৩ অক্টোবর মামলা তদন্তের দায়িত্ব পেলেও পুনঃ মনয়নাতদন্তের জন্য রায়হানের লাশ কবর থেকে উত্তোলন ছাড়া মামলার কোনো অগ্রগতিই দেখাতে পারেনি পিবিআই। 

গত ১১ অক্টোবর সকালে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সিলেট নগরের আখালিয়ার নেহারীপাড়ার রায়হান আহমদের মৃত্যু হয়। রায়হানের পরিবারের সদস্যরা জানান, বন্দরবাজার ফাঁড়িতে পুলিশের নির্যাতনে রায়হানের মৃত্যু হয়েছে। মাত্র ১০ হাজার টাকা না দেওয়ার নির্যাতন চালিয়ে পুলিশ তাকে হত্যা করেছে বলে পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ। 

পুনরায় ময়নাতদন্তের জন্য রায়হানের মরদেহ কবর থেকে উত্তোলনের অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছিলেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কোতোয়ালি থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুল বাতেন। গত ১৫ অক্টোবর পিবিআই আখালিয়া নবাবি মসজিদ কবরস্থান থেকে রায়হানের মরদেহ উত্তোলন করে পুনরায় ময়নাতদন্তের জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজে পাঠায়। ময়নাতদন্ত শেষে ওইদিন লাশ পুনরায় দাফন করা হয়। 

অতিরিক্ত নির্যাতনে রায়হানের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন সাংবাদিকদের জানান, ওসমানী হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. শামসুল ইসলাম। এ ঘটনায় বন্দরবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবরসহ চারজনকে বহিষ্কার এবং তিনজনকে প্রত্যাহার করা হলেও তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। এ ঘটনার প্রতিবাদে এবং অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের গ্রেপ্তারের দাবিতে ধারাবাহিক আন্দোলন চললেও কোনো আসামিই এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার হয়নি। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার না করায় সুষ্ঠু বিচার নিয়ে জনমনে শঙ্কা দেখা দিলেও পুলিশ বলছে এসআই আকবরের দেশত্যাগ ঠেকাতে সকল ইমিগ্রেশনে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) বিএম আশরাফ উল্যাহ তাহের তদন্তাধীন মামলার বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। তিনি সিলেট মিররকে বলেন, ‘পিবিআই মামলা তদন্ত করছে। এ বিষয়ে কোনো তথ্য আমার কাছে নেই।’ সাময়িক বহিষ্কৃত এসআই আকবরকে এখনও পাওয়া যায়নি বলে সিলেট মিররকে নিশ্চিত করেছেন বিএম আশরাফ উল্ল্যাহ।  

বিক্ষোভে উত্তাল নগর : হত্যাকারীদের দ্রæত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে চলছে ধারাবাহিক আন্দোলন। গতকাল শুক্রবারও আন্দোলনে উত্তাল ছিল নগর। সিলেটের বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ থেকে রায়হানের ওপর নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত পুলিশ সদস্যদের গ্রেপ্তারের দাবি জানানো হয়েছে। 

বিক্ষোভ কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, ‘রায়হান হত্যার ৬ দিন পার হলেও এখনও কোনো আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। পুলিশের হাতে থাকা এসআই আকবর পালিয়ে গেছে। এখনও তার কোনো খোঁজ দিতে পারেনি আইনশৃখংলা বাহিনী। এসব কারণে সাধারণ মানুষের মনে এই বিচার নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।’ বিচার নিয়ে কোনো টালবাহনা সহ্য করা হবে না বলে হুশিয়ারিও দেন তারা। 

আখালিয়ায় আকবরের প্রতীকী ফাঁসি : পুলিশ ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হান আহমদের মৃত্যুর ঘটনায় গতকাল শুক্রবার বিক্ষোভ করেন নগরের আখালিয়া নতুন বাজার এলাকার বাসিন্দারা। এ সময় তারা রায়হান হত্যার ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির বহিষ্কৃত ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূইয়ার প্রতীকী ফাঁসি কার্যকর করেন। 

আন্দোলনকারীরা বলেন, ‘আকবরের প্রতীকী ফাঁসি দেওয়ার মাধ্যমে আমরা আইনী প্রক্রিয়ায় তার ফাঁসি কার্যকরের দাবি জানিয়েছি।’ বিকেলে নতুন বাজার পয়েন্টে বিক্ষোভ মিছিল ও সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করেন এলাকাবাসী। নতুন বাজারের মুরব্বি নজরুল ইসলাম নজুর সভাপতিত্বে রিয়াজ উদ্দীন রিয়াজ ও মো. ফয়জুল হক এর যৌথ পরিচালনায়, মিছিলে নতুন বাজার এলাকাসহ বিভিন্ন পাড়ামহল্লা থেকে বিপুল সংখ্যক জনতা অংশগ্রহণ করেন। 

প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর জগদীশ চন্দ্র দাস। বিশেষ অতিথি ছিলেন কাউন্সিলর মো. ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াছ, টুকেরাবাজ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস শহীদ, ৭, ৮ ও ৯ নম্বর  মহিলা কাউন্সিলর রেবেক বেগম রেণু, মদীনা মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতি সভাপতি আমির হোসেন আমির, সাবেক সদর ভাইস চেয়ারম্যান জইন উদ্দিন আহমদ, মুফতি আলী হায়দার প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন, মো. শাহজাহান মিয়া, ৬ নম্বর ওয়ার্ডরে মেম্বার প্রমুখ। 

উলামা মাশায়েখ পরিষদ : নগরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে উলামা মাশায়েখ পরিষদ। গতকাল শুক্রবার বেলা দুইটায় নগরের সিটি পয়েন্ট থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি শুরু হয়ে গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট প্রদক্ষিণ করে পুনরায় সিটি মার্কেট পয়েন্টে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্য দিয়ে সমাপ্ত হয়। 

উলামা মাশায়েখ পরিষদের সহসভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা লুৎফুর রহমান হুমায়দীর সভাপতিতে¦ ও সেক্রেটারি অধ্যক্ষ ড. মাওলানা এ.এইচ.এম সোলায়মানের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, পরিষদের দায়িত্বশীল মুফতি আলী হায়দার, মাওলানা মুশাহিদ আহমদ, মাওলানা মাহমুদুর রহমান দিলাওয়ার ও মাওলানা মাসুক আহমদ।

সুন্নী ওলামা মাশায়েখ পরিষদ : বাংলাদেশ জাতীয় সুন্নী ওলামা মাশায়েখ পরিষদ সিলেট জেলা ও মহানগর শাখার যৌথ উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেল ৩টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ জাতীয় সুন্নী ওলামা মাশায়েখ পরিষদ সিলেট মহানগর শাখার সভাপতি আব্দুল আওয়ালের সভাপতিত্বে ও জেলা শাখার সভাপতি ক্বারী মাওলানা কে. এম. মিনহাজ উদ্দিনের পরিচালনায় মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হাকীম মাওলানা আনসার আহমদ সিদ্দিকী, বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক কাউন্সিলর আব্দুল খালিক, ছাত্রনেতা এনাম উদ্দিন রুমেল প্রমুখ।

সোনাতলা ও লামারগাঁও নাগরিক সমাজ : সোনাতলা ও লামারগাঁও নাগরিক সমাজের আয়োজনে মানববন্ধন পালিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সোনাতলা বাজারে সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক কমিটির সদস্য আব্দুর রবের সভাপতিত্বে ও ছাত্রলীগ নেতা আল আমিনের পরিচালনায় মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কান্দিগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নিজাম উদ্দিন।

মানববন্ধনে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, মুরব্বি কাঞ্চন মিয়া, সিরাজ মিয়া, সাবেক মেম্বার মনির আলী, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাাসেবক লীগের আহবায়ক মোহাম্মদ শাহজাহান, শাহ্ খুররম ডিগ্রি কলেজ প্রভাষক শরিফ উদ্দিন প্রমুখ। 

বৃহত্তর পশ্চিম সদরবাসী : অব্যাহত ধর্ষণ ও রায়হান হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে সিলেটের বৃহত্তর পশ্চিম সদরবাসীর উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার বিকেলে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। লামাকাজী পূর্বপাড়ের মুরব্বি বশির উদ্দিন মেম্বারের সভাপতিত্বে ও নারী ও শিশু অধিকার ফোরাম সিলেট জেলা আহŸায়ক কমিটির সদস্য জাকির হোসেন ও কামরান উদ্দিন অপুর যৌথ পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, শাহজাহান আহমদ, আব্দুল আলী, আপ্তাব উদ্দিন, মঈনুল হক, ময়না মিয়া, কামাল আহমেদ , এম ইউ লাহিন, অ্যাডভোকেট বাবুল আহমেদ,  হোসাইন আহমদ,  সেবুল আহমদ,  জইন উদ্দিন, ওয়াহিদ রুকন,  মোহাম্মদ এখলাছুর রহমান , এইচ এম দিলোয়ার , কাওসার আহমদ , ল কলেজ ছাত্রনেতা শাহিন আহমদ , ছাত্রনেতা শাহ সুলেমান আহমদ সালমান প্রমুখ। 

বৃহত্তর তেমুখি বন্ধু সমাজকল্যাণ সংস্থা : রায়হান আহমদের খুনিদের দ্রæত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছে বৃহত্তর তেমুখি বন্ধু সমাজকল্যাণ সংস্থা। গতকাল শুক্রবার বিকেলে তেমুখি পয়েন্টে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। বৃহত্তর তেমুখি ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জুবের আহমদ সুমনের সভাপতিত্বে, বৃহত্তর তেমুখি বন্ধু সমাজকল্যাণ সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আলীউর রহমান আলী ও প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আহাদ লিমনের যৌথ পরিচালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, টুকের বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শহিদ আহমদ, বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ একেএম তারেক কালাম, সদর উপজেলার সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান জৈন উদ্দিন, খাদিমপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম ডালিম, ইউপি সদস্য আব্দুল মালেক প্রমুখ।

বিএ-০৮