আট দলের মাহা-ইমজা মিডিয়া কাপে কে কোন দলে

খেলা ডেস্ক


জানুয়ারি ০৩, ২০২১
১১:০৭ অপরাহ্ন


আপডেট : জানুয়ারি ০৩, ২০২১
১১:০৭ অপরাহ্ন



আট দলের মাহা-ইমজা মিডিয়া কাপে কে কোন দলে

মাহা-ইমজা মিডিয়া কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের প্লেয়ার ড্রাফট অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ রবিবার (৩ জানুয়ারি) একটি অভিজাত হোটেলের হল রুমে সিলেটে সংবাদকর্মীদের নিয়ে প্রথমবারের মতো ড্রাফটের মাধ্যমে দল গঠন করে টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া দলগুলো।

টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া দলগুলো হলো দৈনিক সিলেট মিরর, দৈনিক সংবাদ, দৈনিক উত্তরপূর্ব, একুশে টিভি, দৈনিক একাত্তরের কথা, দৈনিক জৈন্তাবার্তা, ডিবিসি নিউজ ও নিউজ টুয়েন্টিফোর।

তিনপর্বে অনুষ্ঠিত প্লেয়ার ড্রাফট অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে ইমজার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মঈন উদ্দিন মনজুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক সজল ছত্রীর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন টুর্নামেন্টের স্পন্সর প্রতিষ্ঠান মাহার সত্ত্বাধিকারী, বাফুফে সদস্য মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি আল আজাদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ইকরামুল কবীর, জ্যেষ্ঠ ক্রীড়া সাংবাদিক বদরুদ্দোজা বদর, ইমজার সাবেক সভাপতি কাম কামুর রাজ্জাক রুনু, মইনুল হক বুলবুল ও বাপ্পা ঘোষ চৌধুরী।

অনুষ্ঠানের তৃতীয়পর্বে লটারীর মাধ্যমে পূর্ব নির্ধারিত খেলোয়াড় তালিকা থেকে খেলোয়াড় বেছে নেন ফ্রাঞ্চাইজিগুলো। খেলোয়াড় ড্রাফট পরিচালনা করেন মাহা ইমজা ৪র্থ মিডিয়া কাপ ফুটবল আয়োজন কমিটির আহ্বায়ক বাপ্পা ঘোষ চৌধুরী, সদস্য সচিব মাহমুদুর রহমান মিলন, সদস্য কামকামুর রাজ্জাক রুনু, আনিস রহমান, প্রত্যুষ তালুকদার, ইমজার সাবেক সভাপতি মইনুল হক বুলবুল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক দেবাশীষ দেবু ও মঞ্জুর আহমেদ।

দ্বিতীয়পর্বে অংশগ্রহণকারী ফ্রাঞ্চাইজিগুলোর মধ্য থেকে অনুভূতি ব্যক্ত করেন সিলেট মিররের পক্ষে সিলেট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আ র ম রেনু, একুশে টিভির পক্ষে জেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহ দিদার আলম নোবেল, দৈনিক সংবাদের পক্ষে দৈনিক সংবাদ ও কলকাতা টিভির বিশেষ প্রতিনিধি আকাশ চৌধুরী, দৈনিক উত্তরপূর্বের পক্ষে বার্তা সম্পাদক ফখরুল ইসলাম, দৈনিক জৈন্তাবার্তার পক্ষে সম্পাদক ফারুক আহমদ, ডিবিসি নিউজের পক্ষে প্রত্যুষ তালুকদার, নিউজ টুয়েন্টিফোরের, সৈয়দ রাসেল এবং দৈনিক একাত্তরের কথার পক্ষে সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন আহমদ।

দৈনিক সিলেট মিররের খেলোয়াড়রা হলেন, নেহার রঞ্জন পুরকায়স্থ, বেলাল আহমেদ, আলী আকবর কোহীনূর, হুমায়ূন কবির লিটন, মাশরুর রাসেল, গোপাল বর্ধন, শামীম হোসেইন, জাহেদ আহমদ, হাসান নাঈম, ফয়সল আহমদ ও নাবিল হোসেন।

লটারীতে একাত্তরের কথা আক্রমণভাগে দিব্য জ্যোতি সী, হাসান মো. শামীম, রক্ষণভাগে মইনুদ্দিন, রফিকুল ইসলাম সুজন, মধ্যমাঠে মোস্তাফিজুর রহমান রোমান, আহমাদ সেলিম, আনন্দ সরকার এবং গোলরক্ষক হোসাইন আহমদ সুজাদকে নিয়ে দল গঠন করে। দৈনিক উত্তরপূর্ব আক্রমণভাগে মাহমুদুর রহমান মিলন, শাকিব আহমদ মিঠু, রক্ষণভাগে শংকর দাস, সুব্রত দাস, মধ্যমাঠে ওলিউর রহমান, দেবাশিষ দেবু ও মারুফ হাসান এবং গোলরক্ষক হিসেবে শাবির ইমরানকে নিয়ে দল গঠন করেছে। নিউজ টুয়েন্টিফোর আক্রমণভাগে শফি আহমদ, সৈয়দ রাসেল, রক্ষণভাগে মাহমুদ হোসেন, ইউসুফ আলী এবং মধ্যমাঠে রফিকুল ইসলাম কামাল, দীপক বৈদ্য দিপু, শুভ্র দাস গোলরক্ষক অনিল পালকে নিয়ে দল গঠন করেছে।

একুশে টেলিভিশন আক্রমণভাগে সইফুল ইসলাম অপু, মো. আব্দুল মুকিত অপি, রক্ষণভাগে শ্যামানন্দ শ্যামল, লিটন চৌধুরী, মধ্যমাঠে আবু বক্কর, আহবাব মুস্তফা খান, নৌসাদ আহমেদ চৌধুরী এবং গোলরক্ষক নিরানন্দ পালকে নিয়ে দল সাজিয়েছে। দৈনিক সিলেট মিরর আক্রমণভাগে আলী আকবর চৌধুরী কুহিনুর, গোপাল বর্ধণ, রক্ষণভাগে হুমায়ুন কবির লিটন, মাশরুর রাসেল মধ্যমাঠে শামীম হোসাইন, নেহার পুরকায়াস্থ, জাহেদ আহমদ এবং গোলরক্ষক বেলাল আহমদকে নিয়ে দল গঠন করেছে।

দৈনিক জৈন্তা বার্তা আক্রমণ ভাগে মান্না চৌধুরী, কাইয়ুম উল্লাস রক্ষণভাবে মানাউবি সিংহ শুভ, সুনীল সিংহ, মধ্যমাঠে মঞ্জুর আহমদ, নাবিল আহমদ চৌধুরী ও আকরাম হোসেন এবং গোলরক্ষক নাজমুল কবির পাভেলকে নিয়ে দল গঠন করেছে। ডিবিসি নিউজ আক্রমণভাবে সোহাগ আহমেদ, নূর আহমদ রক্ষণভাবে শাহিন আহমদ, রবি কিরন সিংহ রাজেশ মধ্যমাঠে সুলতান সুমন, হাসান শিকদার সেলিম, রঞ্জিত সিংহ এবং গোলরক্ষক রেজা রুবেলকে নিয়ে দল গঠন করে।

এছাড়া দৈনিক সংবাদ প্লেয়ার ড্রাফটে আক্রমণভাগে মইন উদ্দিন মনজু, এ এইচ আরিফ, রক্ষণভাবে রায়হান উদ্দিন, শেখ আব্দুল মজিদ, মধ্যমাঠে মারুফ আহমদ, নুরুল হক শিপু, ইদ্রিস আলী ও গোলরক্ষক মাইদুল রাসেলকে নিয়ে দল গঠন করেছে। এছাড়া লটারীতে দুটি গ্রুপ নির্ধারণ করা হয়। এ গ্রুপে দৈনিক সংবাদ, সিলেট মিরর, নিউজ ২৪ ও জৈন্তা বার্তা বি গ্রুপে ডিবিসি নিউজ, দৈনিক উত্তরপূর্ব, একুশে টেলিভিশন ও একাত্তরের কথা লীগ পদ্ধতিতে পরস্পরের বিরুদ্ধে খেলবে।

আরসি-০১