@Framework : Laravel 6 (IT Factory Admin) @Developer : Faysal Younus Daily Sylhet Mirror | বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলা, মন্ট্রিয়লে গণমিছিল-প্রতিবাদ
বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলা, মন্ট্রিয়লে গণমিছিল-প্রতিবাদ

খেলা ডেস্ক


অক্টোবর ২৭, ২০২১
০৩:১৭ অপরাহ্ন


আপডেট : অক্টোবর ২৭, ২০২১
০৩:১৯ অপরাহ্ন



বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলা, মন্ট্রিয়লে গণমিছিল-প্রতিবাদ


হিন্দু সম্প্রদায়ের সর্ববৃহৎ প্রাণের উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজার সময় কুমিল্লা শহরের নানুয়ার দীঘির পাড় পূজামণ্ডপে কথিত ধর্ম অবমাননার অভিযোগকে কেন্দ্র  করে বাংলাদেশ সনাতন ধর্মাবলম্বী জনগোষ্ঠীর উপর হামলা, নির্যাতন, হত্যা, ধর্ষণ, ধর্মীয় উপসানালয় মন্দিরে,  বাড়িঘরে, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এমন কি গ্রামের পর গ্রাম হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ, লুটপাটসহ সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে মন্ট্রিয়লে এক বিশাল গণ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মন্ট্রিয়ল ডাউন টাউনের একটি ব্যস্ত সড়ক ‘উই ওয়ান্ট জাস্টিস, উই ওয়ান্ট জাস্টিস’র সংক্ষুব্দ গণ-উচ্চারণে মুখরিত হয়ে ওঠেছিল গত রবিবারের সারাদিন।পাঁচ বছরের শিশু থেকে পঁচাশি বছরের বৃদ্ধ নেমেছিলেন সেই গণমিছিলে।কানাডায় জন্ম নেওয়া ও বেড়ে ওঠা নতুন প্রজন্মের এতো বেশি উপস্থিতি আগে কখনও দেখা যায়নি।বাংলাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর বারবার অবর্ণনীয় নির্যাতনের খবরে প্রবাসের নতুন প্রজন্মও এবার হতবাক, বিক্ষুব্দ। 

মন্ট্রিয়লের প্রাণকেন্দ্র ডাউনটাউনের এটওয়াটার মেট্রো সংলগ্ন থেকে বিপুল সংখ্যাক বাংলাদেশির উপস্থিতিতে মূলধারায় বেশ আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।  মিছিলটির শুরু হবার পূর্বে কানাডায় জন্ম নেওয়া ন‍তুন প্রজন্মের ছেলে মেয়েরা ইংলীশ ও ফরাসী ভাষায় বক্তব্য রেখে ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করে। 

দুপুর বারোটার পর দলে দলে পরিবার পরিজন নিয়ে রকমারি ব্যানার ফেস্টুন, প্লেকার্ড নিয়ে শিশু-কিশোর তথা আবালবৃদ্ধবণিতা দল-ধর্ম নির্বিশেষে উপস্থিত হয়ে বাংলাদেশে বার বার সংখ্যালঘু নির্যাতনের তীব্র প্রতিবাদ জানান। বক্তারা বলেন, বিভিন্ন সরকারের আমলে একই কায়দায় বার বার মিথ্যে অভিযোগ এবং ফেক আইডি দিয়ে সংখ্যালঘুদের ওপর বর্বরোচিত হামলা চালানো হয়। কোন সরকারের আমলেই এসব ঘটনার বিচার না হওয়াতে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত বাংলাদেশের সংখ্যালঘু নিধনকার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

মন্ট্রিয়লের এই বিশাল প্রতিবাদ মিছিলে নতুন প্রজন্মে উপস্থিতি ছিলো দেখার মতো।  মিছিলটি এটওয়াটার থেকে শুরু হলেও ডাউন টাউনের প্রাণকেন্দ্র সেন্ট ক্যাথরিন স্ট্রিট দিয়ে প্রায় দুই কিলোমিটার পদমিছিল করে গেই কর্নকর্ডিয়ায় সমাপ্তি হয় আয়োজকের অন্যতম ‍উদ্যোক্তা প্রাক্তন অধ্যক্ষ ও জনপ্রতিনিধি  ফণিন্দ্র কুমার ভট্টাচার্য এর সমাপনী বক্তব্যের মাধ্যমে। শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত বিশাল মিছিলটি যখন রাস্তা অতিক্রম করছিলো তখন মূলধারার মানুষরা গাড়ীর হর্ণ বাজিয়ে আন্দোলনকারীদেরকে সমর্থন জানায়। মিছিলে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ ছাড়াও মুসলিম সম্প্রদায়ের ব্যক্তিবর্গসহ অনেক প্রগতিশীল  সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা  উপস্থিত ছিলেন। নতুন প্রজন্মের বক্তারা  ম্লোগানে শ্লোগানে শুধু একটি দাবিই করেছেন, বিগতদিনে বাংলাদেশের সংখ্যালঘুদের ওপর বিভিন্ন সরকারের আমলে ভয়ানক নির্যাতন হয়েছে তার বিচার করে বাংলাদেশের হিন্দু সম্প্রদায়কে শান্তিতে বসবাস করার সুযোগ করে দেওয়া।

এএন/০৩