টাকা ছাড়া মিলছে না প্রশংসাপত্র

নিজস্ব প্রতিবেদক


সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০
১২:৪০ পূর্বাহ্ন


আপডেট : সেপ্টেম্বর ১২, ২০২০
০১:৫৩ পূর্বাহ্ন



টাকা ছাড়া মিলছে না প্রশংসাপত্র

সিলেটের দি এইডেড হাই স্কুল থেকে প্রশংসাপত্র নিতে শিক্ষার্থীদের নগদ অর্থ গুণতে হচ্ছে। প্রশংসাপত্রের জন্য অর্থ আদায়ের কোনো নিয়ম না থাকলেও এই বিদ্যালয় প্রশংসাপত্রের জন্য শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পাঁচশ টাকা আদায় করছে। 

প্রতি বছর এসএসসি পরীক্ষায় কৃতকার্য উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে ভর্তির জন্য শিক্ষাবোর্ড প্রদত্ত সনদপত্র ও নম্বরপত্রের পাশাপাশি প্রাতিষ্ঠানিক প্রশংসাপত্রের প্রয়োজন হয়। নিয়ম অনুযায়ী শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে প্রতিষ্ঠান থেকে প্রশংসাপত্র দেওয়ার কথা। এক্ষেত্রে এইডেড হাইস্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৫০০ টাকা আদায় করছে। বিনিময়ে তাদেরকে কোনো রশিদও দেওয়া হচ্ছে না। টাকা দিতে না পারলে বা অস্বীকার করলে শিক্ষার্থীদের বিড়ম্বনার শিকার হতে হচ্ছে। যদিও বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে কোনো শিক্ষার্থী টাকা দিতে না পারলে বিনামূল্যে প্রশংসাপত্রের জন্য আবেদন করলে বিষয়টি বিবেচনা করা হবে। 

এ বছর এইডেড হাই স্কুল থেকে এসএসসি উত্তীর্ণ এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘কলেজে ভর্তি হতে হলে প্রশংসাপত্রের প্রয়োজন হয়। কিন্তু বিদ্যালয়ে গিয়ে প্রশংসাপত্র চাইলে ৫০০ টাকা চাওয়া হয়। টাকা ছাড়া প্রশংসাপত্র দেওয়া হবে না বলে জানানো হয়েছে আমাদেরকে।’

আরেক শিক্ষার্থীর অভিভাবক নাঈম ইসলাম সিলেট মিররকে বলেন, ‘আমার দুই ভাই এবার এসএসসি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। এক ভাই এইডেড হাই স্কুল থেকে, আরেক ভাই অন্য আরেকটা প্রতিষ্ঠান থেকে পাস করেছে। কিন্তু এইডেড স্কুল থেকে প্রশংসাপত্র নিতে ৫০০ টাকা চাওয়া হয়েছে। কিন্তু অন্য বিদ্যালয়ে এই বাবদ কোনো টাকা নেওয়া হচ্ছে না।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষার্থী জানান, বাধ্য হয়েই ৫০০ টাকার বিনিময়ে তিনি বিদ্যালয় থেকে প্রশংসাপত্র গ্রহণ করেছেন। তবে বিদ্যালয় থেকে তাকে কোনো রশিদ দেওয়া হয়নি। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দি এইডেড হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. শমশের আলী টাকা নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ‘এটা বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্ত। তবে যারা টাকা দিতে পারবে না তারা বিদ্যালয়ে আবেদন করলে আমরা বিষয়টি বিবেচনা করি।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা সিলেট অঞ্চলের উপপরিচালক কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক প্রতাপ চৌধুরী সিলেট মিররকে বলেন, ‘সরকারি নীতিমালা অনুযায়ী প্রশংসাপত্র সংগ্রহ করতে টাকা দেওয়ার কোনো নিয়ম নেই। কোনো প্রতিষ্ঠান যদি টাকা নিয়ে থাকে সেটা অযৌক্তিক। কোনো শিক্ষার্থীর কাছ থেকে এ ধরনের  অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

বিএ-০৩